“পেগাসাস নিয়ে তদন্ত জরুরি”,  সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ এডিটরস গিল্ড

0

পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলো এডিটরস গিল্ড। সংসদে হট্টগোলের পর শীর্ষ আদালতে এডিটরস গিল্ডের দ্বারস্থ হওয়াকে খুবই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এনিয়ে বেশ অস্বস্তিতে রয়েছে সরকার।

পেগাসাস স্পাইওয়্যার কাণ্ডে সুপ্রিম কোর্টে  তদন্তের দাবি জানায় এডিটরস গিল্ড। সাংবাদিকদের এই সংস্থার পাশাপাশি মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছেন আরও পাঁচ সাংবাদিক। পেগাসাস প্রযুক্তির সাহায্যে তাদের ফোনে আড়িপাতা হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে। সুপ্রিম কোর্টর প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানা ইতিমধ্যেই বলেছেন, আগামী বৃহস্পতিবার এ সংক্রান্ত মামলা শুনবেন। তার আগে একের পর এক নতুন মামলা এই অভিযোগের গুরুত্ব বাড়িয়ে তুলেছে।

এডিটরস গিল্ড মঙ্গলবার যে আবেদন জানিয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, সুপ্রিম কোর্ট যেন অবিলম্বে তদন্তের নির্দেশ দেয়। সংস্থার আবেদন, এ সংক্রান্ত চুক্তির বিষয় সরকারকে জানাতে সর্বোচ্চ আদালত বাধ্য করুন। কাদের ফোন এই নজরদারির আওতায় রয়েছে বা ছিল, সেই তালিকাও সরকার প্রকাশ্যে আনুক।

এডিটরস গিল্ডের আরও আবেদন, ১৯৫১ সালের টেলিগ্রাফ আইনের বিধি ও ২০০০ সালের তথ্যপ্রযুক্তি আইন, যা কিনা নজরদারির অধিকার সরকারকে দিয়েছে, তা অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হোক। এডিটরস গিল্ডের এই আবেদনের পাশাপাশি মঙ্গলবার শীর্ষ আদালতের শরণাপন্ন হন এমন পাঁচ সাংবাদিক, যাদের ফোন এই নজরদারির আওতায় ছিল বলে খবর ছড়ায়। এই সাংবাদিকেরা হলেন প্রবীণ সম্পাদক প্রেমশঙ্কর ঝা, পরঞ্জয় গুহঠাকুরতা, এস এন এম আবদি, রূপেশকুমার সিং ও ইপসা শতাক্ষী। এই পাঁচজনই তাঁদের ফোন পেগাসাস কাণ্ড নিয়ে তদন্তকারী সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের হাতে তুলে দিয়েছিলেন তদন্তের জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here