গার্হস্থ্য হিংসা প্রতিরোধে দেশজুড়ে অভিযানে নামলো জামাত ইসলামি হিন্দের মহিলা শাখা

0

গার্হস্থ্য হিংসা প্রতিরোধে দেশজুড়ে প্রচারাভিযানে নামলো জামাত ইসলামি হিন্দের মহিলা শাখা।‘শক্তিশালী পরিবার, শক্তিশালী সমাজ’ শীর্ষক থিম নিয়ে প্রচার শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জামাতের মহিলা উইং।

এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, গত বছরের এপ্রিল মাসে রাষ্ট্রসংজ্ঞের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুয়েতেরেস ‘ “পারিবারিক সহিংসতা বৃদ্ধি”  বন্ধের আহ্বান জানিয়েছিলেন। রাষ্ট্রসংজ্ঞের এই আহ্বানে সাড়া দেয় জামাত ইসলামি হিন্দ এবং  ‘শক্তিশালী পরিবার, শক্তিশালী সমাজ’ শীর্ষক অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার থেকে এই অভিযান শুরু হবে। চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। বুধবার নতুন দিল্লিস্থিত প্রেস ক্লাব অব ইন্ডিয়ায় আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে একথা জানান জামাত ইসলামি হিন্দ মহিলা শাখার সহকারী সম্পাদক রহমতুন্নিসা।

মোট দশদিনের এই কার্যসূচিতে পরিবার ও সমাজের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দেশব্যাপী প্রচার চালানো হবে।রহমতুননিসা বলেন, লকডাউনের সময় সবচেয়ে বেশি গার্হস্থ্য সহিংসতার ঘটনা ঘটে। যেখানে নারীদের সবচেয়ে বেশি নিরাপদ থাকার কথা নিজেদের সেই ঘরেই নারীরা নিরাপদ নয়। লকডাউনের সময় এই গার্হস্থ্য হিংসায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন রাষ্ট্রসংজ্ঞের মহাসচিব।

রহমুতুননিসা জাতীয় মহিলা কমিশনের বরাত দিয়ে বলেন,  লকডাউনের  সময় ভারতের পারিবারিক হিংসা গত দশ বছরের রেকর্ডকে ছাপিয়ে গেছে। তিনি বলেন,  আসল সংখ্যাটি আরও বেশি হতে পারে। কারণ পারিবারিক সহিংসতার ঘটনাবলির মধ্যে মাত্র ৭ শতাংশই রেকর্ড হয়।

তিনি বলেন, রেকর্ডের বাইরে থাকার কারণ হলো এই সমাজে মহিলাদের প্রতি শারীরিক, যৌন ও মানসিক সহিংসতাকে স্বাভাবিক মনে করা হয়।

তিনি উল্লেখ করেন, লকডাউনের সময় করোনার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের হার কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছিল। সঙ্গে আকাশ ছঁয়েছিল পারিবারিক সহিংসতার ঘটনা।

মহিলা জামাতের এই প্রচার অভিযানের পেছনে রাষ্ট্রসংজ্ঞের মহাসচিবের বক্তব্যই মূল প্রেরণা বলে উল্লেখ করেন রহমতুননিসা।

দশ দিনের কার্যসূচির বিশদ বিবরণ তুলে ধরেন প্রচারাভিযানের সর্বভারতীয় আহ্বায়ক মিসেস শাইস্তা রাফাত। বলেন, আমরা মুসলিম সম্প্রদায়ের পাশাপাশি সংখ্যাগুরু  সমাজের  কাছেও পৌঁছাতে চাই।

তিনি বলেন, আমাদের তৃণমূল পর্যায়ের প্রোগ্রামের পাশাপাশি রাজ্য এবং জাতীয়-স্তরের কার্যসূচিও রয়েছে। দশদিনের ব্যাপক কার্যসূচিকে সফল করতে তিনি সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here