ত্রিপুরা সরকারের চাকরি পরীক্ষা নিয়ে সোসিয়্যাল মিডিয়ায় সরব শাসকদলের বিধায়ক সুদীপ! কটাক্ষ তৃণমূলের

0

এবার প্রকাশ্য নিজের সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন ত্রিপুরার বিধায়ক সুদীপ রায়। সরকারের অস্বস্তি বাড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি পোস্ট করলেন।

ত্রিপুরায় সরকারি চাকরির পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে টু্ইটে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন বিজেপির এই বিধায়ক। টু্ইটে রাজ্য সরকারের কাছেই পরীক্ষাসূচি বাতিলের দাবি জানিয়েছেন তিনি। এভাবে সরকারেরই একজন শরিক হয়ে তথা মন্ত্রী হয়েও সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরকারি চাকরির পদ্ধতি নিয়ে অনাস্থা প্রকাশ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট কেন?  বিষয়টিকে হাতিয়ার করে পালটা গেরুয়া শিবিরকে নিশানা করেছে তৃণমূলও। তৃণমূলের কটাক্ষ– মুখ্যমন্ত্রীকে জরুরি বিষয়ে বলার সুযোগ দলের সিনিয়র বিধায়কদেরও নেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতে হচ্ছে?

এ নিয়ে, বিভিন্ন মহল থেকে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। তাহলে, ত্রিপুরা বিজেপির অন্দরে কি কোন্দলের সুর? এমনিতেই ২০২৩ বিধানসভা ভোটে ত্রিপুরাকে পাখির চোখ করেছে ঘাসফুল। এই পরিস্থিতিতে যেভাবে গেরুয়া শিবিরের অন্দরে কোন্দল বাড়ছে তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জোর চর্চা শুরু হয়েছে।

ত্রিপুরায় তৃণমূল ঝাঁপাতেই যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় বেসুরো হতে শুরু করেছেন সুদীপ– তা নিয়েও জল্পনা শুরু হয়েছে। সুদীপ কি তাহলে আরও একবার তৃণমূলে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন। উল্লেখ্য– এর আগেও তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন সুদীপ। কিন্তু– তা বেশি দিনের ছিল না। সেই সুদীপ এখন রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের বিধায়ক। ফের তাঁর তৃণণূলে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছে না রাজনৈতিক মহল। ত্রিপুরার বিজেপি সরকারের অস্বস্তি বাড়িয়ে  রাজ্যের এই বিধায়ক আরও লিখেছেন– ‘এই সমস্ত চাকরির ক্ষেত্রে স্থানীয়দের অধিকার নিশ্চিত করতে পি আর সি বাধ্যতামূলক হয়– কিন্তু এক্ষেত্রে তা সম্পূর্ণ বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে, যা কাঙ্খিত নয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here